হেডলাইন
◈ একদিনে হাসপাতালে রেকর্ড ৪৩৮ ডেঙ্গু রোগী! ◈ আমার গ্রাম-আমার শহর’ বাস্তবায়নে ২৪৫ প্রকল্প ◈ সীমান্তের ঘটনায় আরাকান আর্মি-আরসার ওপর দায় চাপালো মিয়ানমার! ◈ ভারতে ইলিশ রপ্তানি বন্ধে স্থায়ী নির্দেশনা চেয়ে রিট! ◈ সাংবাদিক শাকিল হাসানকে হত্যাচেষ্টার মামলায় রায় ১৮ অক্টোবর! ◈ যুবলীগের সম্পাদক নিখিলসহ ৫০০ জনের বিরুদ্ধে বিএনপির মামলার আবেদন! ◈ শহীদ আফ্রিদির সংস্থায় সেই ব্যাট দিলেন নাসিম শাহ ◈ হঠাৎ মোদি ও এরদোগানের বৈঠক ◈ সাগরে আবারও লঘুচাপ সৃষ্টির আভাস, বাড়তে পারে বৃষ্টি ◈ নতুন রুপে আবার অভিনয়ে নিয়মিত রত্না ◈ ওমরাহ পালনে সৌদি গেলেন টাইগার অলরাউন্ডার ◈ জাতীয় পার্টি কোনো জোটে নেই: জিএম কাদের ◈ রানির শোভাযাত্রায় ডায়ানার যে স্মৃতি মনে দাগ কেটেছে প্রিন্স উইলিয়ামের ◈ মৃত্যুর পরে কি হয় তাদের লাশ || ◈ শান্তর ভূয়সী প্রশংসায় যা বললেন শ্রীরাম ◈ রাশিয়ার বিরুদ্ধে যে অঙ্গীকার করলেন জেলেনস্কি ◈ বিএনপি নেতা শাহ মোয়াজ্জেম আর নেই ◈ ফের নাম্বার ওয়ান অলরাউন্ডার সাকিব ◈ রাশিয়া প্রথমবারের মতো ইরানের ড্রোন ব্যবহার করেছে ◈ ভারত সফরে বাংলাদেশ কী পেল, যা বললেন প্রধানমন্ত্রী

For Advertisement

বিদ্যুৎকেন্দ্রকে যত খুশি ঋণ দেওয়ার সুযোগ দিয়ে নির্দেশনা জারি

২৬ জুলাই ২০২২, ১০:৩৩:৩৬

বিদ্যুৎকেন্দ্রগুলোকে যে কোনো পরিমাণ ঋণ দেওয়ার সুযোগ দিয়ে নতুন নির্দেশনা জারি করেছে বাংলাদেশ ব্যাংক। ফলে আগামী ৬ মাসের জন্য বিদ্যুৎকেন্দ্রগুলোকে যত খুশি তত ঋণ দিতে পারবে ব্যাংক।

কোনো একক বা গ্রুপকে ব্যাংক তার নিজস্ব মূলধনের সর্বোচ্চ ২৫ শতাংশ পর্যন্ত ঋণ দিতে পারে, সেই নিষেধাজ্ঞা ৬ মাসের জন্য তুলে দিয়েছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক। ইউক্রেন যুদ্ধের কারণে জ্বালানির বাজারে অস্থিরতার কারণে বিদ্যুৎকেন্দ্রগুলোর খরচ বেড়েছে। তাই এই ঋণ সুবিধা দেওয়া হলো।

মঙ্গলবার বাংলাদেশ ব্যাংকের ডেপুটি গভর্নর আবু ফরাহ মো. নাছের স্বাক্ষরিত প্রজ্ঞাপনে এই নিষেধাজ্ঞা বিদ্যুৎকেন্দ্রের জন্য ৬ মাসের জন্য তুলে নেওয়া হয়েছে। এই নির্দেশনা সব ব্যাংকের প্রধান নির্বাহীদের কাছে পাঠিয়েছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক।

নির্দেশনায় বলা হয়েছে, ‘বিদ্যুৎ উৎপাদনে প্রয়োজনীয় অর্থ সরবরাহ নির্বিঘ্ন রাখার লক্ষ্যে ওই খাতে জ্বালানি তেলসহ অন্যান্য কাঁচামাল আমদানির জন্য এ সুযোগটি দেওয়া হলো। এজন্য ব্যাংক কোম্পানি আইন, ১৯৯১ এর ২৬খ(১) ধারার শর্তাংশে বর্ণিত নিষেধাজ্ঞা আগামী ৬ মাসের জন্য কার্যকর হইবে না।’

নিষেধাজ্ঞা তুলে নেওয়ার পর এখন থেকে ‘কেস-টু-কেস’ অর্থাৎ প্রতি আবেদন বিবেচনা করে ঋণসীমা নির্ধারণ করে দেওয়া হবে বলে জানিয়েছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক।

উল্লেখ্য, ব্যাংক কোম্পানি আইন অনুযায়ী- কোনো একক গ্রাহককে (কোম্পানি, ব্যক্তি ও গ্রুপ) ব্যাংকের মূলধনের সর্বোচ্চ ২৫ শতাংশ পর্যন্ত ঋণ দেওয়ার সুযোগ রয়েছে।

For Advertisement

পূর্বাকাশ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Comments: