হেডলাইন
◈ একদিনে হাসপাতালে রেকর্ড ৪৩৮ ডেঙ্গু রোগী! ◈ আমার গ্রাম-আমার শহর’ বাস্তবায়নে ২৪৫ প্রকল্প ◈ সীমান্তের ঘটনায় আরাকান আর্মি-আরসার ওপর দায় চাপালো মিয়ানমার! ◈ ভারতে ইলিশ রপ্তানি বন্ধে স্থায়ী নির্দেশনা চেয়ে রিট! ◈ সাংবাদিক শাকিল হাসানকে হত্যাচেষ্টার মামলায় রায় ১৮ অক্টোবর! ◈ যুবলীগের সম্পাদক নিখিলসহ ৫০০ জনের বিরুদ্ধে বিএনপির মামলার আবেদন! ◈ শহীদ আফ্রিদির সংস্থায় সেই ব্যাট দিলেন নাসিম শাহ ◈ হঠাৎ মোদি ও এরদোগানের বৈঠক ◈ সাগরে আবারও লঘুচাপ সৃষ্টির আভাস, বাড়তে পারে বৃষ্টি ◈ নতুন রুপে আবার অভিনয়ে নিয়মিত রত্না ◈ ওমরাহ পালনে সৌদি গেলেন টাইগার অলরাউন্ডার ◈ জাতীয় পার্টি কোনো জোটে নেই: জিএম কাদের ◈ রানির শোভাযাত্রায় ডায়ানার যে স্মৃতি মনে দাগ কেটেছে প্রিন্স উইলিয়ামের ◈ মৃত্যুর পরে কি হয় তাদের লাশ || ◈ শান্তর ভূয়সী প্রশংসায় যা বললেন শ্রীরাম ◈ রাশিয়ার বিরুদ্ধে যে অঙ্গীকার করলেন জেলেনস্কি ◈ বিএনপি নেতা শাহ মোয়াজ্জেম আর নেই ◈ ফের নাম্বার ওয়ান অলরাউন্ডার সাকিব ◈ রাশিয়া প্রথমবারের মতো ইরানের ড্রোন ব্যবহার করেছে ◈ ভারত সফরে বাংলাদেশ কী পেল, যা বললেন প্রধানমন্ত্রী
হোম / সারা বাংলা / বিস্তারিত

For Advertisement

গাজীপুর থেকে হঠাৎ যানজট উধাও

২০ জুলাই ২০২২, ৬:৪৮:৪২

কয়েক দিন আগে গাজীপুরে ঢাকা-টাঙ্গাইল ও ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কে প্রতিদিন লেগেই থাকতো যানজট। নিত্যদিন যানজটের ভোগান্তি পোহাতো মানুষ। আর গত কয়েক দিন ধরে হঠাৎ করে গাজীপুর থেকে উধাও হয়ে গেল যানজট। এখন আর নেই সেই যানজটের ভোগান্তি।

পুলিশ ও নগরবাসী জানান, গাজীপুর সিটি করপোরেশনের চান্দনা চৌরাস্তা মোড়, শিববাড়ি, রাজবাড়ী রোড, জয়দেবপুর রেল ক্রসিং, কোনাবাড়ী এবং ঢাকা-ময়মনসিংহ সড়কের টঙ্গী থেকে চান্দনা চৌরাস্তা পর্যন্ত প্রায়ই লেগে থাকতো যানজট। এ যানজটে ভোগান্তি পোহাতে হতো প্রায় সকল শ্রেণির যাত্রীদের। আর যাত্রীরা যানজটে আটকা পড়ে থাকতো ঘণ্টার পর ঘণ্টা। এতে নষ্ট হতো সময়, অযথা পুড়তো যানবাহনের জ্বালানি। মহাসড়কে অবাধে চলাচল করতো ব্যাটারিচালিত অটোরিকশা ও ইজিবাইক।

ঢাকা-টাঙ্গাইল ও ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়ক দুটি ছিল এসব যানবাহনের দখলে। অতিরিক্ত হারে বেড়ে গিয়েছিল এসব যানবাহন। দাপিয়ে বেড়াতো সড়ক-মহাসড়কে। তিন চাকার এসব যানবাহন উল্টো পথে ও দ্রুত গতিতে চলাচল করে সৃষ্টি করতো যানজট। সড়কের বিভিন্ন পয়েন্টে জটলা বেঁধে থাকতো ব্যাটারিচালিত অটোরিকশা ও ইজিবাইক। এসব যানবাহনের কারণে প্রতিদিন গাজীপুরে বিভিন্ন এলাকায় লেগে থাকতো যানজট, ভোগান্তিতে পড়তো যাত্রীরা। আর হঠাৎ করেই গত কয়েকদিন ধরে যানজট থেকে মুক্তি মিলল মানুষের। হঠাৎ করেই যানজট উধাও হয়ে গেল গাজীপুর থেকে।

গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের তৎপরতায় এবং ওইসব যানবাহনের বিরুদ্ধে অভিযান পরিচালনা করায় যানজটের ভোগান্তি থেকে মানুষের মুক্তি মিলেছে। সড়ক মহাসড়ক থেকে উধাও হয়ে গেছে যানজট। এমন কাজের জন্য পুলিশ প্রশংসার দাবিদার মনে করছেন গাজীপুর নগরবাসী।

নগরবাসী পুলিশকে ধন্যবাদ জানিয়ে এ অভিযান অব্যাহত রাখতে জোর দাবি জানান। বর্তমানে গাজীপুর মেট্রোপলিটন এলাকার কোথাও যানজট নেই। এখন যানজটমুক্ত গাজীপুর নগর। সড়ক-মহাসড়কের শৃঙ্খলা অনেকটাই ফিরে এসেছে।

গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের (জিএমপি) কমিশনার মোল্যা নজরুল ইসলাম ১৪ জুলাই গাজীপুরের সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময় সভা করেন। সভায় বক্তরা গাজীপুর মেট্রোপলিটন এলাকার বিভিন্ন সমস্যার কথা তুলে ধরেন। এসব সমস্যা সমাধানে সবার সহায়তা কামনা করেন জিএমপি কমিশনার।

কামাল হোসেন নামের গাজীপুরের এক বাসিন্দা বলেন, অনেক কষ্ট সহ্য করা যায়। কিন্তু গরমে যানজটে আটকা থাকার কষ্টটা সহ্য হয় না। যানজটের কারণে জরুরি ভিত্তিতে কোনো রোগী নিয়ে হাসপাতালে যাওয়া যায় না। সময় মতো অফিস আদালতেও যাওয়া যায় না। ব্যাটারিচালিত তিন চাকার অটোরিকশা ও ইজিবাইক চলাচল বন্ধ করায় নগরীর কোথাও যানজট নেই। নগরবাসী এখন যানজটমুক্ত। এ ধারাবাহিকতা চলতে থাকলে আমাদের আর যানজটের ভোগান্তি পোহাতে হবে না।

শাহীন নামের একজন বলেন, কোনাবাড়ী থেকে গাজীপুর আদালতে যাওয়ার পথে মোড়ে মোড়ে যানজটে আটকা থেকে ভোগান্তিতে পড়তে হতো। এখন আর সেটা নেই। যানজটের কারণে কোথাও থামতে হয় না। গত কয়েকদিন ধরে গাজীপুরে কোথাও যানজট দেখা যায়নি। মহাসড়কে তেমন ব্যাটারি চালিত অটোরিকশা ও ইজিবাইকও নেই। সেই সঙ্গে কোথাও যানজটও নেই।

গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের উপ-কমিশনার (ডিসি-ট্রাফিক) আব্দুল্লাহ আল মামুন বলেন, যানজট নিরসনে এবং মানুষের ভোগান্তি কমাতে পুলিশ কাজ করছে। মহাসড়ক থেকে ব্যাটারিচালিত রিকশা ও ইজিবাইক চলাচল বন্ধে অভিযান চালানো হচ্ছে। গত চার দিনে প্রায় এক হাজার অটোরিকশা ও ইজিবাইক আটক করা হয়েছে। সবার সহযোগিতা থাকলে মানুষের ভোগান্তি কমাতে এ অভিযান অব্যাহত থাকবে।

For Advertisement

পূর্বাকাশ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Comments: