ADS
হেডলাইন
◈ একদিনে করোনা শনাক্তে ফের রেকর্ড, মৃত্যু ৭২৯৯! ◈ মেয়ে না হওয়ায় ৩ মাসের ছেলেকে বালতির পানিতে চুবিয়ে মারলেন মা! ◈ মনোরঞ্জন হাজংয়ের ওপর দোষ চাপিয়ে বিচারপতির ছেলের জিডি! ◈ আজ মহান বিজয় দিবস- বীর বাঙালির বিজয়ের ৫০ ! ◈ এখনো প্রকাশ হয়নি শহীদ বুদ্ধিজীবীদের পূর্ণাঙ্গ তালিকা! ◈ সাত র‌্যাব কর্মকর্তার নিষেধাজ্ঞা- মার্কিন রাষ্ট্রদূতকে তলব করে ব্যাখ্যা চেয়েছে বাংলাদেশ! ◈ পুনরায় ঢাকার পথে ডা. মুরাদ! ◈ ‘বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সন্তান আইনজীবী পরিবার’ সংগঠনের কেন্দ্রীয় কমিটির যাত্রা শুরু! ◈ বিজয় দিবসে দেশবাসীকে শপথ পড়াবেন প্রধানমন্ত্রী! ◈ পরিচালক মাহমুদ মাহিনের সেপারেশন- ইউটিউবে ঝড়! ◈ ফৌজদারি মামলা পরিচালনার ক্ষমতা হারালেন বিচারক কামরুন্নাহার! ◈ নিপীড়িত মানুষের মজলুম জননেতা মওলানা ভাসানীর ৪৫তম মৃত্যুবার্ষিকী! ◈ তিস্তা মহাপরিকল্পনা প্রকৃতিবিরোধী প্রকল্প! ◈ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ ফাইনালে স্বপ্নভঙ্গ নিউজিল্যান্ডের- চ্যাম্পিয়ন অস্ট্রেলিয়া! ◈ ফ্যাশন, আধুনিকতা ও ব্যক্তিত্ব প্রকাশে – নারীর প্রধান পছন্দ গহনা! ◈ নারী শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারককে সাময়িক প্রত্যাহার! ◈ খালেদা জিয়াকে হাসপাতালে রেখে চিকিৎসার পরামর্শ! ◈ বিচারকের অনন্য উদ্যোগ- ঠিকানাহীন ১১ শিশু মায়ের কোলে! ◈ সাবেক প্রধান বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তাকে প্রকাশ্যে ছুরিকাঘাতে হত্যা! ◈ শরীরচর্চা : বিলাসিতা নয়, প্রয়োজন!
হোম / লাইফস্টাইল / বিস্তারিত

For Advertisement

এই শীতে সৌন্দর্য ধরে রাখার গোপন কৌশল!

১১ নভেম্বর ২০২১, ১০:৩৫:৩৯

প্রকৃতিতে এখন শীতের আগমন। এ সময় ত্বক হয়ে উঠে শুষ্ক। শীতকালে ত্বকের প্রয়োজন আর্দ্রতা। প্রাকৃতিক উপাদানে ত্বকের যত্ন নেওয়া প্রয়োজন শীতকালে।ত্বকের যত্নে বেছে নিতে পারেন নিচের উপাদানগুলো-

মধু: সবচেয়ে শক্তিশালী প্রাকৃতিক উপাদান মধু। যা সাধারণত প্রতিটি ঘরেই থাকে। মধু প্রকৃতির সবচেয়ে শক্তিশালী ময়েশ্চরাইজারগুলোর মধ্যে একটি। ময়েশ্চারাইজের পাশাপাশি ত্বকের সূক্ষ্ম রেখা দূর করতেও সাহায্য করে মধু।

দুধ: ত্বকের যত্নে প্রাচীনকাল থেকে ব্যবহার হয়ে আসছে দুধ। ত্বককে নরম, উজ্জ্বল ও কোমল করতে দুধ ব্যাপক ভূমিকা রাখে। দুধের পুষ্টি ত্বকের সৌন্দর্য বৃদ্ধিতেও ভূমিকা রাখে।

কলা: কলা হচ্ছে প্রাকৃতিক উপাদান যা ত্বককে ময়েশ্চারাইজ করে। কলার মধ্যে রয়েছে ভিটামিন সি, এ পটাশিয়াম, ক্যালসিয়াম, ফসফরাস এবং কার্ব‌োহাইড্রেট। এই সব উপাদান শুষ্ক ত্বকের সমস্যাকে দূর করার জন্য ভীষণভাবে কার্যকর। এর জন্য কলার পেস্টে নারকেল তেল যোগ করে ত্বকের ওপর প্রয়োগ করুন। হালকা শুকিয়ে গেলে পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। এটি শুষ্ক ত্বকের সমস্যাকে দূর করতে সাহায্য করবে।

বেসন ও দুধ: বেসন ত্বকের ক্ষেত্রে দারুণ উপকারী। ত্বকের উজ্জ্বলতা ফিরিয়ে আনার পাশাপাশি বেসন ও দুধের তৈরি ফেস প্যাক নিয়ন্ত্রণে রাখবে আপনার ত্বকের শুষ্কতা। এর জন্য এক চামচ বেসনের সঙ্গে দুধ এবং এক চিমটে হলুদ গুঁড়া দিয়ে ভালোভাবে মিশিয়ে নিয়ে ত্বকের ওপর প্রয়োগ করুন। তারপর ২০ মিনিট পর পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।

নারকেল তেল: শুষ্ক ত্বকের ওপর দারুণ কার্যকরী প্রভাব ফেলে নারকেল তেল। এক চামচ বেসনের সঙ্গে পরিমাণ মতো নারকেল তেল নিয়ে ভালো করে মিশিয়ে নিন এবং ত্বকের ওপর প্রয়োগ করুন। ৩০ মিনিট ত্বকের ওপর রাখার পর গরম পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে ফেলুন। এই শীতে শুষ্ক ত্বকের সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে এই ফেস প্যাকটি প্রতিদিন একবার করে ব্যবহার করুন।

ময়েশ্চারাইজারের ব্যবহার

শীতের শুরুতেই ত্বকে এমন ময়েশ্চারাইজার ব্যবহার করা উচিত, যাতে তেলের পরিমাণ বেশি। সেই সঙ্গে রাতে যে নাইট ক্রিম ব্যবহার করা হয়, তা-ও যেন ওই রকম হয়। কারণ, এসব ক্রিম ত্বক আর্দ্র রাখতে বেশি সহায়ক।

সানস্ক্রিন ব্যবহার জরুরি

অনেকেই মনে করেন শীতকালে সানস্ক্রিন ব্যবহারের প্রয়োজন নেই। কিন্তু শীত হোক কিংবা গ্রীষ্ম মৌসুম—সরাসরি রোদ সব সময় ত্বকের জন্য ক্ষতিকর। তাই শীতের মৌসুমেও বাইরে বের হওয়ার অন্তত ৩০ মিনিট আগে মুখে, হাত ও পায়ে সানস্ক্রিন লাগিয়ে নিন।

হাতের যত্ন নিন

মুখের ত্বকের যত্ন নিয়ে মানুষ যতটা সচেতন, অনেক সময় হাতের যত্নের বিষয়ে ততটা দেখা যায় না। যদিও হাতের ত্বক শীতকালে অনেক বেশি রুক্ষ হয়ে পড়ে। বিশেষ করে যাঁদের বারবার হাত ধুতে হয়, তাঁরা এই সমস্যায় বেশি ভোগেন। এ সময় হাতে ভালো মানের ময়েশ্চারাইজার ব্যবহার করা উচিত। বারবার যাঁদের হাত ধুতে হয় কিংবা স্যানিটাইজ করতে হয়, তাঁদের দিনে কয়েকবার ময়েশ্চারাইজার ব্যবহার করা দরকার।

সুন্দর পায়ের জন্য

শীত মৌসুমে পায়ে মোজা পরে থাকার বিকল্প নেই। এতে পায়ের ত্বক ঝকঝকে, মসৃণ থাকে। এ ছাড়া শীতের সময় পেট্রোলিয়াম জেলি কিংবা গ্লিসারিন দিয়ে পায়ের ত্বকে ম্যাসাজ করতে পারেন। সপ্তাহে একবার এক্সফোলিয়েট করে পায়ের ত্বকের মৃত কোষ তুলে নিন। প্রতি রাতে ঘুমাতে যাওয়ার আগে সামান্য যত্ন শীত মৌসুমে আপনার পায়ে ত্বক সুন্দর রাখবে।

বেশি বেশি পানি পান

শীত মৌসুমে অনেকে তুলনামূলক কম পানি পান করে থাকেন। এটা ত্বকের জন্য মারাত্মক ক্ষতিকারক। ত্বকের জন্য তো বটেই, শুষ্ক মৌসুমে সুস্থ থাকার জন্য বেশি বেশি পানি পান করা দরকার। শরীরে পানিশূন্যতা দেখা দিলে তা একদিকে ত্বকে নানা রোগব্যাধির জন্ম দেয়, ত্বক খসখসে ও রুক্ষ হয়ে যায়; অন্যদিকে পানির অভাব নানা শারীরিক সমস্যার কারণ হয়ে দাঁড়ায়।

নিয়ম মেনে গোসল

প্রকৃতিতে শীত এলে অনেকেই হট বাথ নিতে পছন্দ করেন। এ সময় অনেকেই অতিরিক্ত গরম পানি গায়ে ঢালেন। এতে ত্বক আরও শুষ্ক ও রুক্ষ হয়ে পড়ে। যদি ডায়াবেটিস থাকে, তাহলে অজান্তেই ত্বক পুড়ে যেতে পারে। কারণ, তাঁদের অনুভূতি শক্তি তুলনামূলক কম থাকে। তাই শীত মৌসুমে নিয়ম মেনে গোসল করুন। এ সময় গোসলে অতিরিক্ত গরম পানির ব্যবহার এড়িয়ে চলুন। গোসলে কুসুম গরম পানি ব্যবহার করুন।

For Advertisement

পূর্বাকাশ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Comments: