ADS
হেডলাইন
◈ দারিদ্র্যের কষাঘাতে বিপর্যস্ত বিজিবি সদস্যের আত্মহত্যা! ◈ বিশ্ব জাতিসংঘ দিবস আজ! ◈ এসকে সিনহাসহ ১১ জনের মামলার রায় কাল! ◈ আজ পবিত্র ঈদে মিলাদুন্নবী (সা.) ◈ বেগমগঞ্জে ১৪৪ ধারা ভঙ্গ করে বিক্ষোভ মিছিল, ফেনীতে সংঘর্ষ! ◈ সরকার কোন দুঃখে এসব করতে যাবে: ওবায়দুল কাদের ◈ ব্রিটিশ এমপি হত্যা: ঘটনাস্থল পরিদর্শন করলেন জনসন ◈ দেশ বিক্রি করে তো ক্ষমতায় আসবো না: প্রধানমন্ত্রী ◈ দুর্গাপূজা: ইতিহাস ও শিক্ষা ◈ নির্বাচন কমিশন: সার্চ কমিটি বিশ্বস্ত হতে হবে আগে! ◈ খালেদার সুস্থতা কামনায় দেশব্যাপী দোয়া কর্মসূচি ◈ বিএনপি কখনো সাম্প্রদায়িকতাকে প্রশ্রয় দেয় না: ফখরুল ◈ আমরা নিশ্ছিদ্র নিরাপত্তা দিয়ে যাচ্ছি: ডিএমপি কমিশনার ◈ কুমিল্লার ঘটনায় কাউকে ছাড় দেওয়া হবে না- প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ◈ খালেদা জিয়ার চিকিৎসা দেশে সম্ভব নয়: মির্জা ফখরুল ◈ ডেঙ্গুজ্বর নিয়ে গত ২৪ ঘণ্টায় হাসপাতালে ভর্তি ২১১, মৃত্যু ২! ◈ অনিবন্ধিত নিউজ পোর্টাল বন্ধ ঠেকাতে হাইকোর্টে দুই আবেদন! ◈ বাবরের অবৈধ সম্পদ অর্জন মামলার রায় আজ! ◈ আজ মহাসপ্তমী! ◈ ঋণখেলাপি কমাতে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের নির্দেশ!
হোম / আন্তর্জাতিক / বিস্তারিত

For Advertisement

কলকাতায় মোদির সমাবেশে ব্যাপক বিশৃঙ্খলা

৭ মার্চ ২০২১, ৫:২৬:০৯

পশ্চিমবঙ্গের কলকাতায় ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির ব্রিগেড সমাবেশে ব্যাপক বিশৃঙ্খলা দেখা গেছে। আনন্দবাজার পত্রিকা জানিয়েছে, রোববার কলকাতায় শাসক দল বিজেপির এ জনসভায় বিশৃঙ্খলা সামলাতে হিমশিম খেতে হয়েছে বিজেপির প্রথম সারির নেতাদের। খবরে বলা হয়, জনতাকে সামলাতে একের পর এক বিজেপি নেতা মঞ্চে এসেও কাজ হয়নি। বাবুল সুপ্রিয়, লকেট চট্টোপাধ্যায়, দিলীপ ঘোষ বারবার জনতাকে শান্ত করার চেষ্টা করেও পারেননি। শেষে কৈলাস বিজয়বর্গীয়র টানা তিন মিনিট মিষ্টি কথায় শান্ত হয় বিগ্রেড। এদিন ব্রিগেডের মঞ্চে শুভেন্দু অধিকারী উঠতেই ধাক্কাধাক্কি শুরু হয় ময়দানে। তখনই সাংবাদিকদের জন্য সংরক্ষিত জায়গার পেছন থেকে বিজেপি নেতারা সামনের দিকে এগিয়ে আসলে শুরু হয় বিশৃঙ্খলা। সেসময় মঞ্চে বিজেপি নেতাদের মুখে স্পষ্ট ধরা পড়ে উদ্বেগের ছাপ। বাবুল চলে আসেন মাইকের সামনে। জনতাকে বারবার শান্ত হতে বলেন। এরপর বাবুলকে সরিয়ে লকেট চলে আসেন ডায়াসে। ভিড়ের মধ্যে কোথায় জটলা হচ্ছে তা ক্যামেরায় দেখা না গেলেও বিজেপি নেতাদের মুখের ভাব দেখেই বোঝা যাচ্ছিল তারা বেশ উদ্বিগ্ন। নরেন্দ্র মোদি ব্রিগেডে আসার সময় যত এগিয়েছে ততই বেড়েছে সেই উদ্বেগ। ব্রিগেডে এসে মোদিকে যেন এ ধরনের পরিস্থিতির মুখে না পড়তে হয়, সেজন্য বেশ তৎপর হয়ে ওঠেন বিজেপি নেতারা। রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ বেশ কড়া মেজাজেই বিশৃঙ্খলা সৃষ্টিকারীদের শান্ত হতে বলেন। দীলিপের এমন ধমকেও কাজ না হওয়ায় এরপরই আসেন বাংলায় বিজেপির কেন্দ্রীয় পর্যবেক্ষক কৈলাস বিজয়বর্গীয়। টানা ৩ মিনিট ধরে অত্যন্ত মিষ্টি কথায় তিনি শান্ত করার চেষ্টা করেন সবাইকে। তার কথাতেই কাজ হয়। জনতার মনোযোগ সরাতে পরে মিঠুন চক্রবর্তীকে মঞ্চে ডেকে নেন কৈলাস। তবে মিঠুনের বক্তৃতা চলাকালীন বিশৃঙ্খলা কিছুটা থামলেও ব্রিগেডে মোদি ঢোকার মুখেই ফের শুরু হয় গোলমাল।

For Advertisement

পূর্বাকাশ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Comments: